সংবাদ শিরোনাম :

লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দিলেন শিক্ষামন্ত্রী

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় রবিবার, ২৪ মার্চ, ২০১৯
  • ৩০ যত সময় দেখা হয়েছে


পুর সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় ভোট কেন্দ্র। সকাল ৮টা থেকে ৯টা পর্যন্ত ভোট পড়েছে মাত্র ৫০টি। হাজীগঞ্জ পাইলট বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও আলীগঞ্জ পিটিআই ভোট কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি দেখা মিলেনি। এভাবেই রোববার চাঁদপুরের সাত উপজেলায় ১৭ লাখ ২৬ হাজার তিনশো ৩৪ জন ভোটারের জন্য অপেক্ষায় ছয়শত ৪৮টি কেন্দ্র।

এদিকে, চাঁদপুর সদর উপজেলায় সকাল সাড়ে আটটায় লাইনে দাঁড়িয়ে ভোট দেন শিক্ষামন্ত্রী ডা. দীপু মনি।

এই সাত উপজেলার অর্ধেকেরই বেশি কেন্দ্রে ভোটার উপস্থিতি নেই। চাঁদপুর সদর ও ফরিদগঞ্জ উপজেলার ভোট কেন্দ্রগুলোতে কিছু ভোটার সকালে ভোট প্রয়োগ করলে অন্যান্য উপজেলায় ভোটারদের মাঝে তেমন সাড়া নেই।

চাঁদপুরের সাত উপজেলায় সর্বমোট প্রার্থী হচ্ছেন ৬২ জন। তবে মতলব উত্তর, মতলব দক্ষিণ ও হাজীগঞ্জ এই তিন উপজেলায় চেয়ারম্যান পদে ভোট হচ্ছে না। তারা বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত হয়ে গেছেন। এছাড়া ভাইস চেয়ারম্যান পদে হাজীগঞ্জ উপজেলায় এবং মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে মতলব দক্ষিণ উপজেলায় বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় দুজন নির্বাচিত হয়ে গেছেন।

নির্বাচন হচ্ছে- চাঁদপুর সদর, ফরিদগঞ্জ, হাজীগঞ্জ, শাহরাস্তি, কচুয়া, মতলব উত্তর ও মতলব দক্ষিণ উপজেলার।

হাজীগঞ্জ উপজেলার দায়িত্বে থাকা বিজিবি কর্মকর্তা মিজানুর রহমান বলেন, এ নির্বাচনকে সুষ্ঠু, শান্তিপূর্ণ ও আইন-শৃঙ্খলা বাহিনীর সর্বোচ্চ প্রস্তুতি রয়েছে। এছাড়াও পুলিশ ও র‌্যাবের স্পেশাল টিম নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেটের নেতৃত্বে স্ট্রাইকিং ফোর্স হিসেবে রয়েছে।

পোস্টটি আপনার বন্ধুকে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
About Us | Privacy Policy | Term and Condition | Disclaimer |© All rights reserved © 2021 probashirnews.com