সংবাদ শিরোনাম :

রওশনের কাছে হেরে গেলেন এরশাদ!

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় শনিবার, ২৩ মার্চ, ২০১৯
  • ১৮ যত সময় দেখা হয়েছে


এরশাদের সহোদর জিএম কাদেরকে জাতীয় পার্টির কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া হয়েছে। আর এর মাধ্যমে দলটিতে বেগম রওশন এরশাদের আধিপত্য আরো সুসংহত হলো বলে মনে করছেন রাজনৈতিক বিশ্লেষকরা। কারণ এরশাদের চাওয়া ছিলো তার অবর্তমানে জাতীয় পার্টির হাল ধরবেন তার ছোট ভাই জিএম কাদের। কিন্তু স্ত্রী রওশন বরাবরই এমন সিদ্ধান্তের ঘোর বিরোধী ছিলেন।

জানা যায়, জিএম কাদেরকে কো-চেয়ারম্যানের পদ থেকে অব্যাহতি দেওয়া নিয়ে জাতীয় পার্টিতে চলছে টানাপোড়েন। রওশন এরশাদের ‘কূটকৌশলেই’ তাকে সরে যেতে হয়েছে বলে দাবি করছেন কেউ কেউ। এ নিয়ে তৃণমূলেও প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি হয়েছে। এরশাদের নিজ নির্বাচনী এলাকা খোদ রংপুরেও বিষয়টি নিয়ে ব্যাপক ক্ষোভের সৃষ্টি হয়েছে।

তবে জাপা চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদ কী কারণে ঐ পদ থেকে জিএম কাদেরকে অব্যাহতি দিয়েছেন তার সুস্পষ্ট কোন ব্যাখ্যা দেননি। দলটির একাধিক সূত্র জানায়, চেয়ারম্যান এইচএম এরশাদের শারীরিক অবস্থা বর্তমানে যে পর্যায়ে তাতে করে সাংগঠনিক কার্যক্রম নিয়ন্ত্রণ করা কোনভাবেই তার পক্ষে সম্ভব নয়। এমন পরিস্থিতিতে দলের একক নিয়ন্ত্রণ বেগম রওশন এরশাদের হাতে রাখার জন্যই জিএম কাদেরকে সরিয়ে দেওয়া হয়েছে।

সূত্রগুলো জানায়, বেশ কিছুদিন ধরেই এবিষয় নিয়ে জাপার হাইকমান্ডে আলোচনা চলছিল। এরশাদের সহোদর জিএম কাদেরকে পার্টির সর্বোময় ক্ষমতার অধিকারী করা হলে বিষয়টি সহজভাবে মেনে নেননি রওশন এরশাদ এবং তার অনুসারীরা। সেই থেকেই জিএম কাদেরকে সরিয়ে দেয়ার জন্য তারা নানা রকম চাপ তৈরি করছিলেন।

গুঞ্জন রয়েছে, জিএম কাদেরকে ঐ পদ থেকে সরিয়ে দেয়ার শর্তে বেগম রওশন এরশাদকে গেল সপ্তাহে এরশাদের জম্মদিনের অনুষ্ঠানে যোগ দেন। অনুষ্ঠানে বেগম রওশন এরশাদ জাতীয় পার্টিকে নতুন করে সুসংগঠিত করতে নেতা-কর্মীদের প্রতি আহ্বান জানান।

ঐদিনই শোনা যায় এরশারপত্নী পুনরায় পার্টির ক্ষমতার অধিকারিণী হচ্ছেন। তবে রওশনপন্থীরা জিএম কাদেরকে পার্টির পদ থেকে অব্যাহতি দেবার বিষয়টি ভিন্নভাবে ব্যাখ্যা করছেন। তাদের দাবি জিএম কাদের জাতীয় সংসদের বিরোধী দলীয় উপনেতা। সংসদে তাকে পর্যাপ্ত সময় দিতে হয়। তাছাড়া বিরোধীদলীয় নেতা এইচএম এরশাদ বেশ অসুস্থ, ফলে সংসদে তার বিষয়গুলোও জিএম কাদেরকে দেখতে হয় সেজন্যই পার্টির কার্যক্রম থেকে জিএম কাদেরকে অব্যাহতি দেয়া হয়েছে।

তবে এ বিষয়গুলোর সাথে কোনভাবেই একমত নন জিএম কাদের অনুসারীরা। তাদের মতে, জিএম কাদেরের ক্ষমতা খর্ব করতেই এটা করা হয়েছে।

পোস্টটি আপনার বন্ধুকে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
About Us | Privacy Policy | Term and Condition | Disclaimer |© All rights reserved © 2021 probashirnews.com