ইডেন মাতাবেন রুনা লায়লা

মাত্র কয়েক ঘন্টার অপেক্ষা। কলকাতার ইডেনে ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শুরু হতে যাচ্ছে বাংলাদেশ-ভারত প্রথম দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ। এ উপলক্ষে ইতোমধ্যে তিলোত্তমা সেজে উঠেছে গোলাপি আলোর মালায়। কলকাতা শহরের বহুতল থেকে রাস্তা ভরে গেছে গোলাপি আলোর ছটায়।

কিন্তু প্রথমে বাংলাদেশ-ভারত কেউই পিঙ্ক বলে দিন-রাতের টেস্ট ম্যাচ খেলতে রাজি ছিল না। ভারতীয় ক্রিকেট বোর্ডের সভাপতির দায়িত্ব পাওয়ার পর ভারতের সাবেক ক্রিকেটার সৌরভ গাঙ্গুলী দুই দলকেই রাজি করান। আজ শুক্রবার সেই ঐতিহাসিক ম্যাচের সাক্ষী থাকবে ইডেন।

ভারতের মাটিতে প্রথম দিন-রাতের ম্যাচ। তাই আয়োজনেও রয়েছে কিছুটা চমক। সেখানে দুই দেশের রাজনৈতিক ব্যক্তিরা উপস্থিত তো থাকবেনই, এছাড়া দুই দেশ মিলিয়ে আয়োজন করা হয়েছে বর্ণাঢ্য সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানের। সে অনুষ্ঠানের মূল মন্ত্রই হচ্ছে বাংলার সংস্কৃতিকে আর্ন্তজাতিক অঙ্গণে তুলে ধরা।

শুক্রবার উদ্বোধনের পরই বিশেষ নিবেদন থাকছে সৌরেন্দ্র-সৌম্যজিতের। এরপরই মঞ্চে উঠবেন বাংলাদেশি কিংবদন্তি গায়িকা রুনা লায়লা। ইডেনে প্রথমবারের এই ঐতিহাসিক ম্যাচে গান গাওয়ার সুযোগ পেয়ে উচ্ছ্বসিত এই শিল্পী। সৌরভ গাঙ্গুলী নিজে তাকে ফোন করে অনুরোধ জানান অনুষ্ঠানে গান গাওয়ার জন্য।

কলকাতায় অনুষ্ঠান করতে যাওয়ার যাবতীয় সাহায্য রুনা লায়লা পেয়েছেন দুই দেশের তরফ থেকেই। কিন্তু সেখানে কী কী গান গাইবেন কিংবদন্তি? রুনা লায়লা জানালেন, ‘সাধের লাউ’, ‘বন্ধু তিন দিন’, ‘দামাদম মস্তি কালান্দর’- এগুলো তো থাকবেই। এছাড়াও গাইবেন আরও কয়েকটি জনপ্রিয় গান।

ইডেনের দিন-রাতের টেস্টের উদ্বোধনী অনুষ্ঠানে অংশ নিতে বৃহস্পতিবার রাতেই কলকাতায় পৌঁছেছেন রুনা লায়লা। ভারতের এই শহরটাকে তিনি ‘সেকেন্ড হোম’ বলে থাকেন। কলকাতা মানেই তার বিশেষ কিছু পরিকল্পনা। তবে আপাতত ইডেনে গায়িকার লাইভ পরফর্মেন্স দেখতে অপেক্ষায় দুই দেশের অগণিত দর্শক।