‘আমাকে পুরো ন’গ্ন করেছিলেন পরিচালক’

চরিত্রের প্রয়োজনে অভিনয়শিল্পীদের নানা রূপ নিয়ে ক্যামেরার সামনে হাজির হতে হয়। কিন্তু তাই বলে- এতটা নগ্ন’তা! অষ্টাদশী এক যুবতীর শরীরে একটি সুতোও নেই, চোখে মুখে কম্পন, শিহরণ। সেই মুখের ছবি সোস্যাল মিডিয়ায় ভাইরাল হয়েছে।

বলা হচ্ছিল, রত্না কুমার পরিচালিত তামিল ‘আদাই’ ছবিতে একজন ধ’র্ষিতার চরিত্রে অভিনয় করতে গিয়ে মালায়লম অভিনেত্রী অমলা পাল যে দৃশ্যের মুখোমুখি হয়েছিলেন সেই কথাগুলো। সেদিন ক্যামেরার সামনে অমলাকে এক প্রকার ন’গ্ন করেছিলেন পরিচালক।

সম্প্রতি ‘দ্য হিন্দু’কে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সেই শুটিংয়ের অভিজ্ঞতা তুলে ধরতে গিয়ে আরও একবার কণ্ঠ কেঁপে উঠে অমলার। লাস্যময়ী এই অভিনেত্রী বলেন, ‘পরিচালক আগেই জানিয়েছিলেন যে গায়ে এক ধরণের সূক্ষ পোশাক থাকবে। আমি তখন তাকে বলি, এ নিয়ে কিচ্ছু চিন্তা করতে হবে না।’

‘কিন্তু শুটিংয়ের দিন আমি খুব দুশ্চিন্তায় ছিলাম। আমাকে এক প্রকার ন’গ্ন করেছিলেন পরিচালক। ভাবছিলাম কী হতে চলেছে সেটে, কীভাবে শ্যুট হবে, কে কে থাকবে? শুটিংয়ের সময় ঘরে ১৫ জন লোক ছিলেন। তবে ক্রু মেম্বারদের ওপর ভরসা ছিল।’ কিছুটা আপত্তিকর দৃশ্য ও উষ্ণতা ছড়ানো গল্প থাকলেও শেষ পর্যন্ত অমলাকে তুমুল জনপ্রিয়তা এনে দিয়েছে ‘আদাই’ ছবি।