আরব আমিরাতে প্রবাসীদের জন্য সুখবর,কার্যকর হচ্ছে নতুন শ্রম আইন!

দেশটির মানবসম্পদ মন্ত্রী নাসের আল হামলি বলেছেন, নতুন এই আইন শ্রমিকদের অধিকার ও বেতনের সুরক্ষা দেবে। শ্রমিক নিয়োগ খরচ কমিয়ে কোম্পানিগুলোর ওপর থেকেও চাপ কমাবে এ আইন।নতুন এ আইনে শ্রমিক নিয়োগের ক্ষেত্রে ব্যাংক গ্যারান্টি হিসেবে দেয়া অর্থের পরিমাণ কমিয়ে মালিকদের ওপর থেকে চাপ কমিয়ে আনা হচ্ছে। আগের আইনে, বেসরকারি খাতে নিয়োগের জন্য প্রত্যেক শ্রমিকের জন্য ব্যাংক গ্যারান্টি হিসেবে ৩ হাজার আমিরাতি দিরহাম জামানত হিসেবে জমা করতে হতো।

নতুন এ আইনে, দেশটির কোম্পানিগুলোকে বীমা প্রকল্পের আওতায় শ্রমিক মাথাপিছু মাত্র ৬০ দিরহাম জমা দিতে হবে। দেশটিতে ব্যবসার খরচ কমিয়ে আনাও নতুন এ বীমা আইনের লক্ষ্য। মন্ত্রিসভার এক সিদ্ধান্তের পর গত জুন মাসে প্রত্যেক শ্রমিকের জন্য ২০ হাজার দিরহাম বীমা নির্ধারণ করে একটি রূপরেখা তৈরি করা হয়। চাকরি শেষে, ছুটিতে থাকাকালীন, ওভারটাইম ভাতা, পাওনা মজুরি, বিমানের ফিরতি টিকেট ও আহত শ্রমিকের চিকিৎসার পেছনে এই অর্থ ব্যয় হবে।

এ বিষয়ে মন্ত্রণালয় বলছে, কোম্পানিগুলো বীমা প্রকল্পের আওতায় এলে ব্যাংক গ্যারান্টির অর্থ ১৪ বিলিয়ন দিরহামে বিতরণ করবে। তবে ওয়ার্ক পারমিট পুনর্নবায়নের ছয় মাস আগে পর্যন্ত যেসব কোম্পানি বেতন সম্পর্কিত নীতিমালা লঙ্ঘন করেছে তারা এই বীমা প্রকল্পের সুবিধা পাবে না।বাংলাদেশ সহ বিশ্বের বিভিন্ন দেশ থেকে লাখ লাখ লোক জীবিকার টানে আবার অমিরাতে পাড়ি দিয়েছে ।

আরব আমিরাতে অবস্থানরত প্রবাসীরা নানা ধরণের ঝুর্কিপূর্ণ কাজ করে থাকেন । অনেকে কর্মক্ষেত্রে জীবন চলে যায় । এবার আরব আমিরাতে শ্রমিকদের বিশাল সুখবর দিল আরব অমিরাত সরকার।সংযুক্ত আরব আমিরাতের বেসরকারি খাতে শ্রমিক নিয়োগে নতুন বীমা আইন কার্যকর হচ্ছে। নতুন এ আইন কার্যকর হবে বলে ঘোষণা দিয়েছে আমিরাতের মানবসম্পদবিষয়ক মন্ত্রণালয়।