‘দহন জ্বর’ কমলেই ‘জিহাদ’: আজিজ

সম্প্রতি মুক্তি পেয়েছে জাজ মাল্টিমিডিয়া প্রযোজিত চলচ্চিত্র ‘দহন’। এতে নামভূমিকায় অভিনয় করেছেন পূজা ও সিয়াম। মুক্তির পর থেকে আলোচনায় ছবিটি। কেউ কেউ দাবি করছেন ‘দহন’ হাউজফুল। তবে প্রযোজনা প্রতিষ্ঠান বলছে হাউসফুল না হলেও ভালো চলছে ছবিটি। দীর্ঘদিন চলার মতো ছবি এটি। এরই মধ্যে শিশু জিহাদকে নিয়ে নতুন চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছেন দেশের অন্যতম প্রযোজনা প্রতিষ্ঠানটির কর্ণধার আবদুল আজিজ । এসব নিয়ে সঙ্গে কথা বলেছেন তিনি।



সদ্য মুক্তি পাওয়া ‘দহন’ চলচ্চিত্রে দর্শকের সাড়া পাচ্ছেন কেমন?

দেশে এখন নির্বাচনী হাওয়া বইছে। এ সময়ে যে পরিমাণ দর্শক আশা করেছিলাম তার চেয়ে বেশি দর্শক পাচ্ছে ‘দহন’।

কেউ কেউ দাবি করছিল দহন ‘হাউসফুল’।

ঠিক হাউসফুল বলা যাবে না। তবে দর্শক ভালো হচ্ছে। এখন পর্যন্ত আমরা অসন্তুষ্ট না।

‘দহন’ নিয়ে কতটুকু আশাবাদী জাজ মাল্টিমিডিয়া?

ছবিটার গাঁথুনি ভালো। অনেক দিন ধরে পর্দায় চলার মতো একটি সিনেমা ‘দহন’। প্রাথমিক পর্যায়ে আমরা হল পেয়েছি ৪৬টি। সামনের সপ্তাহে ৮০টা হল ছাড়িয়ে যাবে আশা করছি।

পরবর্তী সিনেমার ঘোষণাও দিয়েছেন। নাম ‘জিহাদ’ বলে শোনা যাচ্ছে। এই নামই কি চূড়ান্ত?

সেটা এখনো ঠিক করিনি। এটা শিশু জিহাদের গল্প নিয়ে তৈরি হবে। আপনাদের হয়তো মনে আছে, ২০১৪ সালের ২৬ ডিসেম্বর রাজধানী ঢাকার শাহজাহানপুরে এক মর্মান্তিক দুর্ঘটনা ঘটেছিল। জিহাদ নামের ছোট্ট ফুটফুটে এক শিশু খেলতে খেলতে রেলওয়ে কলোনির পরিত্যক্ত পাইপের ভেতর পড়ে যায়। ৩০০ ফুট গভীর সেই পাইপ থেকে তাকে উদ্ধার করার জন্য সব প্রচেষ্টাই ব্যর্থ হয়। জিহাদের মৃত্যু সারা দেশের মানুষের মনে নাড়া দিয়েছিল। আমার ভেতরেও নাড়া দিয়েছিল ওই ঘটনা। আমি তখন থেকেই গল্পটি ভেবে রেখেছি, লালন করেছি।

নতুন এই ছবির চিত্রনাট্য নিশ্চয়ই আপনিই লিখছেন।

না না। শুধু গল্প আমার। স্ক্রিপ্ট লিখবে নাজিমুদ্দৌলাহ।

এই ছবির পরিকল্পনার পেছনে আর কী ভাবনা কাজ করেছে?

চলচ্চিত্র দর্শক এখন অনেক সচেতন। তারা কাট-কপি-পেস্ট বোঝে। একটা তামিল গল্প কপি করে ছবি মুক্তি দিলে দর্শক হল থেকে বের হয়ে বলবে এটা তারা ইউটিউবে দেখেছে। প্রযুক্তির এই চরম উৎকর্ষের যুগে নিজস্ব গল্পের বিকল্প নেই। আশপাশের আলোচিত ঘটনা নিয়ে সিনেমা বানালে দর্শক হলমুখী হবে। এ ধারণা থেকেই জাজ মাল্টিমিডিয়া নতুন নতুন গল্পের সিনেমা নির্মাণ করে যাচ্ছে।

সিয়াম-পূজাতে আবার আস্থা রাখলেন।

সিয়াম-পূজা জুটি দর্শক গ্রহণ করেছে। কোনো গল্প যদি সিয়াম-পূজাকে ডিমান্ড করে তাহলে ওদের ওপরই ভরসা রাখব। যদি গল্পে অন্য কোনো মুখের প্রয়োজন হয় তাহলে নিশ্চয়ই অন্য কাউকে নেব। আর জাজ মাল্টিমিডিয়া বরাবর আবিষ্কারে বিশ্বাসী। দর্শক যেমন হলে গিয়ে নতুন সিনেমা দেখতে চায়, তেমনি নতুন নতুন শিল্পীও দেখতে চায়। দর্শকের এই চাহিদা ও আবেগের প্রতি শ্রদ্ধা রেখে আমরা প্রতিনিয়ত নতুনদের পর্দায় নিয়ে আসছি।

জিহাদের গল্প নিয়ে চলচ্চিত্রে নতুন কাউকে দেখার সম্ভাবনা আছে?

কিছু চমক আপাতত অপ্রকাশ থাক।

কবে নাগাদ কাজ শুরু করছেন এই নতুন ছবির?

‘দহন জ্বর’ কমলেই শুরু হবে।

‘মাসুদ রানা’ নিয়ে চলচ্চিত্র নির্মাণের ঘোষণা দিয়েছিলেন, ওটার খবর কী?

প্রক্রিয়া চলছে। খুব শিগগির এ ব্যাপারে বিস্তারিত জানাব।