জিম্বাবুয়েকে বাংলাওয়াশ, ৩-০ তে সিরিজ জয়

আজ চট্টগ্রামের জহুর আহমেদ চৌধুরি স্টেডিয়ামে সিরিজের শেষ ওয়ানডেতে জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে মাঠে নামে বাংলাদেশ। ২-০ তে এগিয়ে থাকা বাংলাদেশ আজ হোয়াইটওয়াশের ম্যাচে প্রথমে বোলিং করে।



টস হেরে জিম্বাবুয়ে ৫ উইকেটে ২৮৬ রান করে। দলের এই পুঁজি গড়তে বড় ভূমিকা রাখেন শেন উইলিয়ামস। তিনি শেষ পর্যন্ত ক্যারিয়ার সেরা ১২৯ রান করে অপরাজিত থাকেন। এ ছাড়া ব্যান্ডন টেইলর ৭৫ ও সিকান্দার রাজা ৪০ রান করে করেন। বাংলাদেশের পক্ষে নাজমুল ইসলাম অপু ২ উইকেট নেন। আর আবু হায়দার রনি ও সাইফউদ্দিন ১টি করে উইকেট নেন।

২৮৭ রানের জবাবে ব্যাট করতে নেমে প্রথম বলেই সাঝঘরে ফেরেন লিটন দাস। তবে এরপর ইমরুল-সৌম্য দলের হাল ধরেন। তাদের দুর্দান্ত জুটিতে বিপর্যয় কাটিয়ে উঠে বাংলাদেশ দল। দলে ফিরে সেঞ্চুরি তুলে নিলেন। সাড়ে তিন বছর পর সৌম্যর সেঞ্চুরি দেখা পেলেন। ৮১ বলে ১০০ রান করেন তিনি। ৯ টা চার ও ৪ টা ছয়ের সাহায্যে তিনি এ শতক তুলে নিলেন। তবে শেষ পর্যন্ত ৯২ বলে ১১৭ রান করে আউট হন।

সৌম্যের পর সেঞ্চুরি তুলে নিলেন ইমরুল। ৯৯ বল ১০০ রান করেন। ৯ চার ও ১টি ছয়ের সাহায্যে তিনি এই শতক তুলে নিলেন। আউট হওয়ার আগে ১১২ বলে ১১৫ রান করেন তিনি। ১০টি চার ও ২ ছয় হাকান তিনি।

একই সঙ্গে দারুণ এক রেকর্ড গড়েছেন ইমরুল কায়েস। তিন ম্যাচের সিরিজে সর্বোচ্চ রানের রেকর্ড গড়েছেন তিনি। ২০১৫ সালে পাকিস্তানের বিপক্ষে তিন ম্যাচের ওয়ানডে সিরিজে মোট ৩১২ রান করেছিলেন তামিম। এবার তাকেও ছাড়িয়ে গেছেন ইমরুল।

জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সিরিজের প্রথম ম্যাচে ক্যারিয়ার সেরা ১৪৪ রানের ইনিংস খেলেন ইমরুল। এরপর দ্বিতীয় ম্যাচে খেলেন ৯০ রানের দারুণ এক ইনিংস। আজ তৃতীয় ম্যাচে এই প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১১৫ রান করে আউট হন। এরই ফলে তিন ম্যাচের সিরিজে দেশের হয়ে সর্বোচ্চ রানের মালিক এখন ইমরুল।