সংবাদ শিরোনাম :

পর্নো ছাড়ার কারণ হিসেবে যা বললেন মিয়া খলিফা

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় শনিবার, ৩ মার্চ, ২০১৮
  • ২৮ যত সময় দেখা হয়েছে

মিয়া খলিফা। এক নামেই তাকে চেনেন বিশ্বের বহু মানুষ। তার জন্ম লেবাননের এক খ্রিস্টান পরিবারে। ইসলামে কঠোরভাবে নিষিদ্ধ এমন একটি পেশা বেছে নিয়েছিলেন তিনি। হয়ে উঠেছিলেন পর্নো তারকা। এক সময় তিনিই ছিলেন একটি পর্নো বিষয়ক ওয়েবসাইটের শীর্ষ তারকা।

কিন্তু পর্নো তারকার পেশা ছেড়ে দিয়েছেন মিয়া খলিফা। কেন? এর কারণ সম্পর্কে তিনি নিজেই মুখ খুলেছেন। বলেছেন, জঙ্গি গোষ্ঠী আইসিস তাকে হত্যার হুমকি দিয়েছে। এর ফলে নিজেকে তিনি দেখতে পেয়েছেন নিয়ন্ত্রণের বাইরে। প্রচন্ড ঝুঁকিতে। তাই ছেড়ে দিয়েছেন পর্নো দুনিয়া। এখন স্পোর্টস প্রেজেন্টার হিসেবে কাজ করছেন।

এ সব নিয়ে লন্ডনের অনলাইন ডেইলি মেইলের সাংবাদিক ল্যান্স আর্মস্ট্রংয়ের সঙ্গে কথা বলেছেন মিয়া খলিফা। তার জন্ম মধ্যপ্রাচ্যের লেবাননের রাজধানী বৈরুতে। মাত্র ১০ বছর বয়সে তিনি পাড়ি জমান যুক্তরাষ্ট্রে। আস্তে আস্তে পা রাখেন পর্নো দুনিয়ায়। এ নিয়ে মধ্যপ্রাচ্যে তোলপাড় শুরু হয়। উত্তেজনায় ফুটতে থাকে চারপাশ। তার সমালোচনায় সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম, মিডিয়ায় ঝড় ওঠে। কিন্তু পিছু ফিরে তাকান নি মিয়া খলিফা। তিনি পর্নো শিল্পে হয়ে ওঠেন বিশ্বের প্রথম সারির মুখ। এক নামেই সবাই চিনে নেয় তাকে। এমন অবস্থায় গত বছর প্রাণহানীর হুমকি পান তিনি আইসিসের পক্ষ থেকে। এরপরই তিনি পর্নো জগত ছেড়ে দেন।

পর্নো জগত ছেড়ে দেয়ার সময় তিনি প্রকাশ করেন নি যে, কি কারণে এ জগত ছাড়ছেন। তবে এখন মুখ খুলেছেন। বলেছেন, ওই যে আইসিসের হত্যার হুমকি। ওই কারণেই পর্নো ছবিতে কাজ করা বন্ধ করে দিয়েছেন।

মিয়া খলিফা বলেছেন, যখন আইসিসের পক্ষ থেকে প্রাণনাশের হুমকি আসা শুরু হলো, তখন সব কিছু কেমন নিয়ন্ত্রণের বাইরে চলে যেতে থাকলো। এ সময়ই আমি এ জগত থেকে সরে আসা শুরু করি। তিনি বলেন, যখনই আমি জনপ্রিয়তা অর্জন করা শুরু করি, তখনই এই ঘটনা ঘটতে থাকে। আসলে আমি এভাবে এ জগত ছাড়তে চাই নি। আমি চেয়েছিলাম ওই হুমকির বিরুদ্ধে দাঁড়িয়ে কথা বলি। কিন্তু পারি নি।

পোস্টটি আপনার বন্ধুকে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
About Us | Privacy Policy | Term and Condition | Disclaimer |© All rights reserved © 2021 probashirnews.com