প্রত্যেক সৌদি আরব প্রবাসীদের অবশ্যই জানা জরুরি

প্রকাশিত: মার্চ ৩, ২০১৮ / ০১:০৫অপরাহ্ণ
প্রত্যেক সৌদি আরব প্রবাসীদের অবশ্যই জানা জরুরি

২০২০ সালের মধ্যে সৌদি আরব থেকে নিজ দেশে ফিরে যাবে বাংলাদেশিসহ ৬ লাখ ৭০ হাজারের বেশি বিদেশি নাগরিক। এক প্রতিবেদনে এ তথ্য প্রকাশ করেছে ব্যাংক অব সৌদি ফ্রান্সি।

ভিডিওটি দেখুন এখানে

 

সৌদি সরকার বিদেশি নাগরিকদের কাছ থেকে (যারা ফ্যামেলি নিয়ে থাকেন ) গত পহেলা জুলাই ২০১৭ হতে তাদের পরিচয় পত্র (আকামা) নবায়ন করতে বর্ধিত ফি নিতে শুরু করেছে। যা(প্রতি মাসে) ২০২০ সাল নাগাদ পর্যায়ক্রমে বেড়ে ৪’শ রিয়াল (ফ্যামিলি মেম্বারদের ক্ষেত্রে) । আর শ্রমিকদের ক্ষেত্রে ৮’শ রিয়ালে পৌঁছাবে ।

 

ভিশন ২০৩০ অনুসারে সৌদি অর্থনীতিতে পণ্যের ওপর বিভিন্ন ধরনের করারোপ সহ তেল রফতানির ওপর নির্ভরতা কমিয়ে বিকল্প অর্থনীতির উন্নয়নের জন্য শিল্পায়নের উদ্যোগ নিয়েছে দেশটি। যাতে করে সৌদি নাগরিকদের কাজ করার সুযোগ সৃষ্টি হয়।
ব্যাংক অব সৌদি ফ্রান্সির প্রতিবেদনে বলা হচ্ছে, বর্তমানে সৌদি আরবে ১ কোটি ৬০ লাখ বিদেশি নাগরিক কাজ করছে। এবং প্রতি বছর ১ লাখ ৬৫ হাজার বিদেশি নাগরিক দেশটি ছেড়ে চলে যাচ্ছে।এদের মধ্যে বর্তমানে ১৫ লাখের বেশী বাংলাদেশী নাগরিক রয়েছে….
প্রশ্ন হলো ২০২০ সালে পরে আমরা কি পারবো এদেশে থাকতে?

 

আমাদের দ্বারা কি সম্ভব ১৫০০-২০০০ রিয়াল বেতনে চাকরি করে কপিলের ফায়দা দিয়ে ২০২০ সালে ১২০০০ রিয়াল দিয়ে আকামা নবায়ন করতে?
আমরা ১৫ লক্ষ প্রবাসী কি পারবো আমাদের ১৫ লক্ষ ফ্যামিলির দায়িত্ব বহন করতে?
এখনি সময় আমাদের নতুন করে কিছু ভাবার?
আমাদের দেশে যদি কর্মসংস্থানের সুযোগ থাকতো

পরের দেশে পরাধীন থেকে নিজের আনন্দময় দিনগুলি শেষ করে দিতাম না । আমাদের দেশের মত কর্মঠ মানুষ বিশ্বের আর কোন দেশে নাই। আমাদের সরকারের কাছে ১৫ লক্ষ সৌদি প্রবাসির
আকুল আবেদন রেমিটেন্স যোদ্ধাদের কথা একটু কষ্ট করে ভাবুন ।
প্লিজ আমাদের মত প্রবাসীদের দেশে কর্মসংস্থানের ব্যবস্থা করুন ।
দেশের চাকা সচল রাখতে শুধু বিদেশে নয়, সঠিক সুযোগ পেলে দেশে থেকেও করা যায় ।

জনস্বার্থে:
আমরা সৌদি আরব প্রবাসী বাংলাদেশী