মা তুমি চিন্তা করো না, আমি তাড়াতাড়ি ফিরে আসবো

প্রকাশিত: মার্চ ১, ২০১৮ / ১১:৫৮অপরাহ্ণ
মা তুমি চিন্তা করো না, আমি তাড়াতাড়ি ফিরে আসবো

বুধবার (২৮ ফেব্রুয়ারি) রাতে বাসায় নিজ হাতে আমার ছেলেকে (রনক) পোলাও খাওয়ালাম, বকা দেওয়ার কারণে সকাল বাসা থেকে বের হয়ে যাওয়ার সময় আমার গালে হাত বুলিয়ে বলেছিলো মা তুমি চিন্তা করো না, আমি তাড়াতাড়ি ফিরে আসবো। ওরে বাবা যদি জানতাম তুই মরদেহ হয়ে ফিরে আসবি, তাহলে যেতে দিতাম না। তোকে বাসা থেকে বের হতে দিতাম না।

ভিডিওটি দেখুন এখানে

 

 

এভাবেই বিলাপ করছিলেন বৃহস্পতিবার (০১ মার্চ) সকালে রাজধানীর কোতোয়ালি শাখারি বাজার এলাকায় হলি উৎসব দেখতে গিয়ে ছুরিকাঘাত নিহত হওয়া কলেজছাত্র রনকের মা হেনা বেগম। ঘটনার সংবাদ পেয়ে তিনি ঢাকা মেডিকেল কলেজ (ঢামেক) হাসপাতালে ছুটে যান।

তিনি অভিযোগ করে  বলেন, রনককে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে। তুহু নামে একটি মেয়ের সঙ্গে রনকের ফেসবুকের মাধ্যমে পরিচয় হয়। এ হত্যাকাণ্ডের সঙ্গে তুহু ও মায়সা নামে একটি মেয়ে জড়িত আছে। পুলিশকে তাদের নাম বলেছি, এখন তারাই বের করবে রনককে কেন হত্যা করা হয়েছে।

একমাত্র ভাইয়ের মৃত্যুর সংবাদ শুনে ঢামেকে ছুটে আসেন রনকের অন্তঃসত্ত্বা বোন খুশবো। ভাইয়ের মরদেহ দেখে দিশেহারা হয়ে পড়েন তিনি। যেন মাকে শান্তনা দেওয়া ভাষা হারিয়ে ফেলেছেন। মায়ের সঙ্গে সঙ্গে তিনিও কেঁদে যাচ্ছেন। তাদের কান্নায় গোটা ঢামেক এলাকা ভারি হয়ে আসছে।

কোতোয়ালি থানা ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) এবিএম মশিউর রহমান জানান, ঘটনার সঙ্গে সঙ্গেই জিজ্ঞাসাবাদের জন্য বেশ কয়েকজনকে আটক করা হয়েছে। আটকদের মধ্যে ২ থেকে ৩জন মেয়ে আছে। তাদের থানায় নেওয়া হয়েছে।

মেয়েলি কোনো ব্যাপার আছে কি না, নাকি অন্য কোনো কারণে রনককে হত্যা করা হয়েছে বিস্তারিত জানতে পুলিশ কাজ করছে বলেও জানান এ কর্মকর্তা।