সংবাদ শিরোনাম :

আমিরাতের আল কুয়া প্রবাসীদের নানা দুর্ভোগ

রিপোর্টার
  • আপডেট সময় বুধবার, ২৮ ফেব্রুয়ারী, ২০১৮
  • ২৬ যত সময় দেখা হয়েছে

সংযুক্ত আরব আমিরাতে দীর্ঘ পাঁচ বছরের বেশি সময় ধরে বন্ধ রয়েছে বাংলাদেশি শ্রমিকদের জন্য নতুন ভিসা। এ ছাড়া অভ্যন্তরীন ভিসা পরিবর্তন বা ভিসা ট্রান্সফার বা কফিল পরির্বতনও হচ্ছে না। ফলে দেশটিতে অবস্থানরত প্রায় আট লক্ষাধিক বাংলাদেশি প্রবাসীদের অনেকেই রয়েছে নানা ভোগান্তিতে।

এ ভোগান্তি থেকে বাদ যায়নি দেশটির বর্ডার সিটি বলে খ্যাত গ্রিন সিটি আল আইনের উপশহর আল কুয়ায় কর্মরত বিভিন্ন পেশার প্রবাসীরাও।

সংযুক্ত আরব আমিরাতের রাজধানী থেকে প্রায় ৩২০ কিলোমিটার আর গ্রিন সিটি আল আইন থেকে প্রায় ১৬০ কিলোমিটার দূরে দক্ষিণ পূর্বে অবস্থিত আল কুয়া শহরটি। এটি আমিরাতের দক্ষিণ পূর্বে ওমানের সীমানায় অবস্থিত গ্রিনসিটি আল আইনের একটি উপশহর। এখানে প্রায় ১০ হাজার বাংলাদেশি প্রবাসী বিভিন্ন পেশায় কর্মরত। তবে প্রবাসীদের অধিকাংশই কৃষি ফার্ম আর উট, গরু, ছাগলের খামারে এবং স্থানীয় আরবদের ঘরে কর্মরত। তাদের অধিকাংশই নিম্ন আয়ের মানুষ। যারা সামান্য বেতনে কাজ করে নিজে চলতে আর দেশে টাকা পাঠাতে হিমশিম খাচ্ছেন প্রতিনিয়ত।

আল কুয়ায় ‘লুল টাইপিং সেন্টার’র পরিচালক মোহাম্মদ রফিক উদ্দিন আহমদ কালের কণ্ঠকে জানান, এখানে অবস্থান বা কর্মরত প্রবাসীদের কিছু কিছু ব্যবসা বাণিজ্যেও নিয়োজিত। তাদের মধ্যে ওয়েল্ডিং, টেইলারিং, গ্রোসারি ও টাইপিং শপ উল্লেখযোগ্য। কিন্তু এসব প্রবাসীরা ভিসা বন্ধ আর ভিসা পরিবর্তনের কোনো সুযোগ না থাকায় ব্যবসা বাণিজ্য চালিয়ে নিতেও হিমশিম খাচ্ছেন।

আল কুয়ায় ছোটখাট ব্যবসায় নিয়োজিত মোহাম্মদ মহি উদ্দিন মহি জানান, ভিসা না থাকায় দিন দিন এখানে লোকজন কমে যাচ্ছে আর নতুন ব্যবসাপ্রতিষ্ঠানে দেশি শ্রমিকও আনা যাচ্ছে না। ফলে অনেকে তাদের ছোট ব্যবসা নিয়ে পড়েছেন বিপাকে। আর যারা বিভিন্ন জায়গায় চাকরি করেন তারাও ভিসা পরিবর্তনের সুযোগ না থাকায় রয়েছেন নানা বিপাকে।

প্রবাসীদের প্রত্যাশা প্রবাসীবান্ধব সরকার জোরালো পদক্ষেপের মাধ্যমে ভিসা ও ভিসা পরির্বতনের ব্যবস্থা করবে।

পোস্টটি আপনার বন্ধুকে শেয়ার করুন

এই বিভাগের আরও সংবাদ
About Us | Privacy Policy | Term and Condition | Disclaimer |© All rights reserved © 2021 probashirnews.com