সৌদি নেতৃত্বাধীন অবরোধ ব্যর্থ: কাতারের আমির

প্রকাশিত: ফেব্রু ২৭, ২০১৮ / ০৪:১৩অপরাহ্ণ
সৌদি নেতৃত্বাধীন অবরোধ ব্যর্থ: কাতারের আমির

সৌদি আরবের নেতৃত্বে কয়েকটি দেশ কাতারের ওপর যে অবরোধ আরোপ করে রেখেছে, তা ব্যর্থ মন্তব্য করেছেন কাতারের আমির শেখ তামিম বিন হামাদ আল থানি। তবে তিনি সতর্ক করে বলেছেন, মাসের পর মাস এই অবরোধের ফলে আঞ্চলিক নিরাপত্তা ও অর্থনৈতিক সম্ভাবনা ক্ষতিগ্রস্ত হচ্ছে।

ভিডিওটি দেখুন এখানে

গত বছরের ৫ জুন কাতারের সঙ্গে সব ধরনের কূটনৈতিক সম্পর্ক ছিন্ন করে সৌদি আরব, সংযুক্ত আরব আমিরাত, বাহরাইন ও মিসর। সেই সঙ্গে স্থল, সমুদ্র ও আকাশপথে নিষেধাজ্ঞা আরোপ করে দেশগুলো। তাদের অভিযোগ, কাতার ‘সন্ত্রাসবাদে’ সহযোগিতা করছে। তবে দোহা বরাবরই এই অভিযোগ অস্বীকার করে আসছে।

শুক্রবার জার্মানির মিউনিখে একটি নিরাপত্তা সম্মেলনে বক্তব্য দেন শেখ তামিম। তাঁর দেশের ওপর সৌদি নেতৃত্বাধীন অবরোধের বিষয়ে সেখানে তিনি বলেন, ‘এটি একটি নিরর্থক সংকট, যা আমাদের প্রতিবেশী দেশগুলো তৈরি করেছে।’ তিনি বলেন, ‘আমাদের জনগণের ওপর এই অবৈধ ও আক্রমণাত্মক পদক্ষেপের প্রভাব দমন করে কাতার তার সার্বভৌমত্ব রক্ষা করেছে। এসব আক্রমণাত্মক খেলোয়াড়েরা তাদের ক্ষমতার খেলায় ও সাম্প্রদায়িক দ্বন্দ্বে ছোট রাষ্ট্রগুলোকে ঘুঁটি হিসেবে ব্যবহার করতে চায়।’

২০১৭ সালের ২২ জুন অবরোধ আরোপকারী চার দেশ তাদের অবরোধ তুলে নিতে পূর্বশর্ত হিসেবে কাতারের প্রতি ১৩ দফা দাবি জানায়। এর মধ্যে ছিল কাতারভিত্তিক চ্যানেল আল-জাজিরা বন্ধ করে দেওয়া, ইরানের সঙ্গে সম্পর্ক সীমিত করা এবং তুরস্কের সেনাবাহিনীকে কাতার থেকে বের করে দেওয়া।

শেখ তামিম নিরাপত্তা সম্মেলনে বলেন, ‘কাতারের মতো দেশগুলোর সার্বভৌমত্ব রক্ষা ও স্বাধীনভাবে সিদ্ধান্ত গ্রহণের ক্ষমতা মুক্ত গণমাধ্যম ও বাক্-স্বাধীনতার মতো উন্নয়নগুলো ত্বরান্বিত করে। অথচ অবরোধ আরোপকারী দেশগুলো চাইছে আমরা যেন এই জিনিসগুলোর ক্ষেত্রে আত্মসমর্পণ করি।’